শিশুর রোগ প্রতিরোধ সম্পর্কে মায়ের করনীয়ঃ

  • শিশুকে প্রতিবার ধরার আগে হাত পরিষ্কার করে নিতে হবে।
  • নবজাত শিশুর নাভীকে শুকনা ও পরিস্কার রাখতে হবে (কোন কিছু লাগানোর প্রয়োজন নেই)
  • চোখে কখনও কাজল/সুরমা দেওয়া যাবে না।
  • জন্মের ৬ সপ্তাহের পর থেকে শিশুকে বিভিন্ন টিকা দিতে হবে।

কখন জরুরি ভিত্তিতে মাকে স্বাস্থ্য সেবা নিতে হবেঃ
নিচের যে কোন একটি লক্ষণ দেখা মাত্র শিশুকে নিকটস্থ স্বাস্থ্যকর্মী/হাসপাতাল/চিকিৎসকের সঙ্গে যোগাযোগ করতে হবে:

  • বুকের দুধ খেতে পারে না বা বন্ধ করে দিয়েছে।
  • অবস্থা আরো খারাপ হয়ে যাচ্ছে।
  • জ্বর অনুভূত হচ্ছে অথবা শরীর ঠান্ডা হয়ে যাচ্ছে।
  •  দ্রুত শ্বাস-প্রশ্বাস নিচ্ছে।
  • মলের সঙ্গে রক্ত যাচ্ছে।

 

২ মাস থেকে ৫ বৎসর পর্যন্ত শিশুদের অসুস্থতা নিরুপণঃ
শিশু কি পান করতে অথবা বুকের দুধ খেতে পারে? শিশুটি নেতিয়ে পড়েছে অথবা অজ্ঞান কিনা? পান করতে বা বুকের দুধ খেতে না পারা ।
শিশু কি খাবার বমি করে ফেলে দেয়?
শিশুটির কি খিঁচুনি হচ্ছে বা হয়েছিল?

  • শিশুটি নেতিয়ে পড়েছে অথবা অজ্ঞান কিনা? পান করতে বা বুকের দুধ খেতে না পারা
  • সব খাবার বমি করে ফেলে দেয়া
  • খিঁচুনি হওয়া অথবা নেতিয়ে পড়া বা অজ্ঞান হয়ে যাওয়া জরুরি ভিত্তিতে হাসপাতালে যোগাযোগ করতে হবে।

জানতে চাই  Child blindness - শিশু অন্ধত্ব, কারন ও প্রতিরোধের উপায়