প্রাকৃতিকভাবে ৬টি ঘরোয়া উপায়ে ঠোঁটের কালো দাগ দূর করুন

সুন্দর, স্বাস্থ্যকর একজোড়া গোলাপি ঠোঁট কমবেশি সবারই কাম্য। সুন্দর গোলাপি ঠোঁট মুখের সৌন্দর্য আরও বাড়িয়ে তোলে। লিপস্টিক কিংবা লিপবাম ছাড়াই অনেক সুন্দর দেখায়। কিন্তু সূর্যের অতি বেগুনি রশ্মি, ধূমপান, চা/কফি পান এবং বয়স ইত্যাদি বিভিন্ন কারণের আমাদের ঠোঁটে কালচে ভাব চলে আসে। যা খুবই অস্বস্তিকর। ঠোঁটের কালচে ভাব দূর করে ঠোঁটে পুনরায় গোলাপি আভা আনতে আছে কিছু প্রাকৃতিক ও সহজ পদ্ধতি। ঘরের কিছু টুকিটাকি ব্যবহার করে ফিরে পেতে পারেন স্বাস্থ্যকর গোলাপি ঠোঁট।

জেনে নিন কিভাবে ঠোঁটের কালো দাগ দূর করবেন

লেবুর রস

লেবুর রস খুব ভালো একটি ব্লিচিং উপাদান হিসেবে বিবেচিত। ঠোঁটের কালো দাগ দূর করতে লেবুর রস খুবই কার্যকরী একটি উপকরণ। প্রতিদিন নিয়ম মেনে সামান্য লেবু চিপে তাজা রসটি দিয়ে ঠোঁট খুব ভালো ভাবে ম্যাসাজ করুন। কয়েক মিনিট ম্যাসাজ করার পর পানি দিয়ে ধুয়ে নিবেন। কয়েকদিনের মধ্যেই ঠোঁটের রঙের পার্থক্য দেখবেন।

বরফ

যে কোন দাগের ওপর বরফ ঘষলে সেই দাগ হালকা হয়ে যায় অনেকেই বরফের এই গুনটি সম্পর্কে ধারনা রাখেন না।
প্রতিদিন ঠোঁটে এক টুকরো বরফ ঘষবেন। বরফ ঠোঁটের আদ্রর্তার পরিমান ঠিক রেখে ঠোঁটকে রুক্ষতার হাত থেকেও পরিত্রান দেবে। এমনকি সাথে আপনার ঠোঁটের কালচে ভাব দূর করবে।

দুধের সর

প্রাচীন কাল থেকেই দুধের সরের মাধ্যমে ঠোঁটের গোলাপি আভা ধরে রাখার এই পদ্ধতি ব্যবহার হয়ে আসছে। আপনিও এই পদ্ধতি ব্যবহারের মাধ্যমে আপনার ঠোঁটের হারানো গোলাপি আভা ফিরে পেতে পারেন। একটি বাটিতে দুধের সরের সাথে মধু মিশিয়ে ঠোঁটে লাগাবেন। আপনার ঠোঁটে প্রতিদিন বেশ কয়েকবার ব্যবহার করবেন। এই পদ্ধতি ব্যবহারে আপনার ঠোঁটের কালো দাগ দূর হয়ে ফিরবে গোলাপি আভা।

চিনি

প্রাকৃতিক স্ক্রাবার হিসেবে অনেক কাজেই চিনি ব্যবহার করা হয়। ত্বকের জন্য স্ক্রাবিং করা যতটা গুরুত্বপূর্ণ ঠোঁটের জন্যও স্ক্রাবিং করা ততটা গুরুত্বপূর্ণ। চিনি দিয়ে ঠোঁট স্ক্রাব করলে ঠোঁটের কালচে ভাব দূর হওয়ার সাথে সাথে ঠোঁটের মরা চামড়াও দূর হয়ে যায়। ৩ চামচ চিনির সাথে ২ চামচ বাটার একসাথে মিশিয়ে একটি পেস্ট তৈরি করে নিবেন। সপ্তাহে অন্তত ২ বার এই মিশ্রণটি দিয়ে ঠোঁট স্ক্রাব করবেন। এতে আপনার ঠোঁটের মরা চামড়া দূর হবে এবং ঠোঁটের কালো দাগ দূর হয়ে ঠোঁটে গোলাপি আভা আসবে।

  ভিটামিন ডি সমৃদ্ধ খাবার
মধু

মধু এমন একটি প্রাকৃতিক উপাদান যা আপনার ত্বককে উজ্জ্বল করতে সহায়তা করে। আপনার ঠোঁটের ত্বকও এর ব্যতিক্রম নয়। মধু ব্যবহারের মাধ্যমে আপনার ঠোঁট থেকে কালচে ভাব দূর করার সাথে সাথে আপনার ঠোঁটকে আরো কোমল করে তুলবে।
রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে সামান্য একটু মধু ঠোঁটে লাগিয়ে সারারাত রাখবেন ।প্রতিদিন শোবার পূর্বে কয়েক সপ্তাহ এভাবে ঠোঁটে মধু লাগাবেন। কয়েক সপ্তাহের মধ্যেই ঠোঁটের কালচে ভাব দূর হবে।

বীটরুট

বীটরুটের রস ঠোঁটে রক্তিম আভা ফিরিয়ে আনতে সক্ষম। বীটরুট ঠোঁটের উজ্জলতা বাড়াতে ও ঠোঁটের রঙ হালকা করতে বেশ কার্যকরী একটি উপাদান। তাই খুব সহজেই তাজা বীটরুটের রস ঠোঁটে লাগিয়ে ঠোঁটের কালচে ভাব দূর করে ঠোঁটের উজ্জলতা বৃদ্ধি করে নিতে পারেন।

error: লেখার সত্ত্ব সংরক্ষিত !!