চটজলদি রান্নাঘর পরিষ্কার করার উপায়

রান্নাঘরে অনেক রকমের জিনিসপত্র থাকে। তবে রান্নাঘর পরিষ্কার রাখার পাশাপাশি সেখানকার সবগুলো বাসনপত্র, বাসন-কোসন রাখার জায়গা ও সার্বিক পরিবেশ পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন ও জীবাণুমুক্ত রাখার কোন বিকল্প নেই। তাই রান্নাঘর পরিষ্কার রাখার কাজটি দ্রুত করতে পারলে ভালো হয়। রান্নাঘরের বিভিন্ন উপকরণ পরিচ্ছন্ন রাখার উপায়:

কফিমগ

চীনামাটি বা সিরামিকের তৈরি কফিমগের প্রতিটি অংশে ভিনেগার ও লবণ মিশিয়ে ঘষে নিলেই পাত্রটি ঝকঝকে হয়ে যাবে।

মাইক্রোওয়েভ

মাইক্রোওয়েভ ওভেনের ভেতরটা দ্রুত পরিষ্কার করতে বেশ কিছু ওয়েট পেপার টাওয়েল ভেতরে দিয়ে উচ্চমাত্রায় ৫ মিনিট ওভেন চালু রাখবেন। এতে ওভেনের ময়লা নরম হবে। ভেতরটা ঠাণ্ডা হলে ওয়েট পেপার টাওয়েলগুলো দিয়ে ভেতরটা মুছে ফেলুন।

ঢালাই লোহার কড়াই

ঢালাই কড়াই কখনোই তরল সাবান দিয়ে ধুতে নেই। লবণ, পানি ও নরম কাপড় দিয়ে ঘষলেই রান্না করার তেল উঠে যাবে।

ব্লেন্ডার

ব্লেন্ডার থেকে ফলের রস বা অন্য পানীয় ঢেলে নেয়ার পর সামান্য পানি ও এক ফোঁটা তরল সাবান দিয়ে আবার ব্লেন্ডারটি ২০ সেকেন্ড ব্লেন্ড করবেন। তারপর সেই তরল মিশ্রণ ফেলে দিয়ে ভেতরটা পানি দিয়ে ভালো করে ধুয়ে নিবেন।

সবজি কাটার

সবজি কাটার ধাতব উপকরণের ছোট ছোট ছিদ্রে অনেক ময়লা ও সবজির অবশেষ লেগে থাকে। পরিষ্কার প্যাস্ট্রি ব্রাশ ব্যবহার করে দুই পাশেই সমানভাবে পরিষ্কার করতে হবে।

কফিপট

কফিমেকারের কাচের জগটি দ্রুত বাদামি হয়ে যায়। খালি জগটিতে ১/৪ ভাগ বরফ, লেবুর রস ও ২ টেবিল চামচ লবণ দিয়ে মুখ বন্ধ করে মিশ্রণটি দুই মিনিট ঝাঁকান। ভেতরের ময়লা নিমিষেই উঠে যাবে।

  চুল পড়া রোধে করণীয় কিছু চুলের যত্ন
error: লেখার সত্ত্ব সংরক্ষিত !!