পার্টি বা উৎসবের সময় নারীরা একটু আধটু সাজগোজ করে থাকেন।আর পুরো মেকআপ আইশ্যাডো ছাড়া একেবারেই বেমানান। কিন্তু যারা পার্লারে না গিয়ে ঘরে বসে নিজেরাই সাজগোজ করেন তারা আইশ্যাডো লাগাতে গিয়ে সামান্য ভুল করে ফেলতে পারেন। যার কারণে পুরো মেকআপটাই নষ্ট হয়ে যেতে পারে। তাই আইশ্যাডো ব্যবহারের সময় কি কি ভুল এড়িয়ে চলা উচিত তা নিম্নে জেনে নিন।

১) আইশ্যাডো প্যালেটের ছোট্ট ব্রাশ দিয়ে ব্লেন্ড করবেন নাঃ
আইশ্যাডো প্যালেট কিনলে তার সাথে কয়েকটি ব্রাশ পাওয়া যায়। ছোট ব্রাশটি মূলত আইশ্যাডো লাগানোর ব্রাশ। অনেকে এই ব্রাশ দিয়েই আইশ্যাডো ব্লেন্ড করার কাজটি করে থাকে। এই কাজটি না করে আইশ্যাডো ব্লেন্ডার ব্রাশ দিয়েই ব্লেন্ড করলে সঠিক ভাবে ব্লেন্ড করতে পারবেন।

২) ভালো করে ব্লেন্ড না করাঃ
আইশ্যাডো ভালো করে ব্লেন্ড না করলে তা চোখের পাতায় ভেসে থাকে যা দেখতে বেশ বিশ্রী দেখায়। কেউ যদি ২/৩ টি রঙের আইশ্যাডো ব্যবহার করে কিন্তু ভালো করে ব্লেন্ড না করে তাহলে তা আলাদা করে বোঝা যায়। এতে পুরো মেকআপটাই নষ্ট হয়। সুতরাং আইশ্যাডো ব্লেন্ডার ব্রাশ দিয়েই ব্লেন্ড করার ব্যাপারে সতর্ক থাকুন।

৩) আইশ্যাডো ব্যবহারের আগে কনসিলার লাগানোর ভুলঃ
অনেকেই আইশ্যাডো আগে না কনসিলার আগে এই বিষয়টির মধ্যে গোলমাল করে ফেলেন।ফলে আইশ্যাডো সঠিকভাবে লাগানো হয় না। তাই মনে রাখুন, প্রথমে চোখে আইশ্যাডো লাগিয়ে ভালো করে ব্লেন্ডার ব্রাশ দিয়েই ব্লেন্ড করে নিন এবং তার পর কনসিলার ব্যবহার করুন।

জানতে চাই  কিভাবে মেকআপ ব্যাবহারের মাধ্যমে চোখকে নজরকাড়া সুন্দর করতে পারবেন?

৪) চোখের নিচের পাতায় বেশি আইশ্যাডোর ব্যবহার করার ভুলঃ
চোখের নিচের পাতায় বেশ গাঢ় ও মোটা করে আইশ্যাডো ব্যবহার করবেন না।যার ফলে আপনাকে অনেক ক্লান্ত দেখবে। চোখের নিচের পাতায় আইশ্যাডো দিতে চাইলে চোখের পাপড়ির কোল ঘেঁষে হালকা করে আইশ্যাডো দিন।

৫) চোখের রঙের সাথে মিলিয়ে আইশ্যাডো দেয়ার ভুলঃ
অনেকে পছন্দের রঙের লেন্স পড়ে লেন্সের রঙের সাথে মিলিয়ে চোখে আইশ্যাডো ব্যবহার করার ভুলটি করে থাকেন। নিয়ম অনুযায়ী চোখের রঙের উল্টো রঙটিই আইশ্যাডোর রঙ হিসেবে ব্যবহার করা উচিত ।এতে মেকআপ ভালো দেখাবে ।